1. hsmini24@gmail.com : himu :
  2. tofazzal183@gmail.com : tofazzal :
সোমবার, ১৭ মে ২০২১, ০১:২১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
সিদ্ধিরগঞ্জে স্ত্রীকে খুন করে পালিয়ে যাওয়া সেই স্বামী গ্রেফতার সিদ্ধিরগঞ্জে রুমা আক্তার নামে গার্মেন্ট কর্মীর মৃত্যু সিদ্ধিরগঞ্জে ঈদের দিনে স্বামীর হাতে স্ত্রীকে খুন পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন- আলহাজ্ব আনিসুর রহমান পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন- ছাত্রলীগ নেতা মিনহাজ পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানালেন- দেলোয়ার হোসেন পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানালেন- মোহাম্মদ শিব্বির আহমেদ পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন- আলমচাঁন অয়ন ওসমানের পক্ষ থেকে সিদ্ধিরগঞ্জের ৫নং ওয়ার্ডে ঈদ উপহার সামগ্রী সাংবাদিক অনিকের স্বরণে সিদ্ধিরগঞ্জে মিলাদ ও দোয়া

এখন সময়-রাত ১:২১ | আজ-৪ঠা শাওয়াল, ১৪৪২ হিজরি

সোনারগাঁয়ে প্রতারক মান্নানের প্রতারণা-বিচারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

  • প্রকাশিত : রবিবার, ১৯ জুলাই, ২০২০
  • ৬৩

আলোকিত শীতলক্ষ্যা রিপোর্ট : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার জামপুর এলাকায় মান্নান মিয়া নামে এক প্রতারক জমি বিক্রির নামে পঁচিশ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। গতকাল শনিবার (১৮ জুলাই) বিকেলে ওই প্রতারক মান্নান ও তার সহযোগীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে জামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হা-মীম শিকদার শিপলু বলেন, উপজেলার জামপুর ইউনিয়নের মহজুমপুর কাজীপাড়া গ্রামের মৃত ইসমত আলীর ছেলে আব্দুল মান্নান মিয়ার কাছ থেকে ২০১৭ সালে ব্রাক্ষনবাওগা মৌজায় আরএস ২৫ ও ২৭ দাগে এস এ-২০৫দাগের ২০ শতাংশ জমি থেকে ৬ শতাংশ জমি ত্রিশ লাখ টাকা দিয়ে ক্রয় করেন তিনি ও তার বন্ধু আশরাফুল ইসলাম মাকসুদ।

তিনি বলেন, আমার কাছে যে জমি বিক্রি করেছেন মান্নান মিয়া সে জমি ২০০৭ সালে তার ভাতিজা মৃত সামসুল হকের ছেলে চাঁন মিয়া, ইউসুফ ও ইব্রাহীম মিয়ার কাছে বিক্রি করে দিয়েছেন। বিষয়টি জানাজানি হয়ে গেলে, আমি মান্নান মিয়া ও তার ছেলে জায়নাল আবেদীনকে অবগত করি এবং জমির বিষয়টি মীমাংসা করা জন্য তাদেরকে চাপ প্রয়োগ করি।

মান্নান মিয়া জমির বিষয়টি মীমাংসা না করে তালবাহানা শুরু করেন এবং বলেন, তিনি তার ভাতিজাদের কাছ থেকে জমি নিয়ে আমাকে দেওয়ার আশ্বাস দেন। পরে এ বিষয়ে মান্নান মিয়া মীমাংসা করতে না পেরে পুনরায় এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে শালিশী বসে। এই শালিশীতে সিদ্ধান্ত হয় মান্নান মিয়া প্রতারনা করে তার মালিকাধীন ৬ শতাংশ জমি থেকে ৩ শতাংশ জমি তার ভাতিজাদের কাছে বিক্রি করে দেন। মান্নানের মা ও তিন ভাই ও তিন বোনের সম্পত্তির ওয়ারিশ বাদ দিয়ে তিনি ১দশমিক ৩০শতাংশ জমির মালিক হন। এ জমির মূল্য আট লাখ টাকা নির্ধারণ করা হয়। আমি অর্ধেক জমির মূল্য হিসেবে চার লাখ টাকা পরিশোধ করেছি। আমার বন্ধু আশরাফুল ইসলাম মাকসুদের কাছে বাকী চারলাখ টাকা পাওনা রয়েছে মান্নান। তবে চারলাখ টাকার বিনিময়ে জমি ক্রয় করতে অনিচ্ছুক আশরাফুল ইসলাম মাকসুদ।

চেয়ারম্যান শিপলু সংবাদ সম্মেলনে আরো উল্লেখ করেন আমি একজন নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি। আমার মান সন্মান ক্ষুন্ন করার জন্য প্রতারন মান্নান মিয়া কতিপয় কুচক্রি মহলের যোগ সাজসে মিথ্যা অপপ্রচার চালাচ্ছেন। আমার কাছ থেকে টাকা নিয়ে আমাকে ফাঁসানোর জন্য চেষ্টা চালাচ্ছেন তারা। তিনি আরো বলেন, একটি মহল আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচার চালিয়ে আমার সুনাম ক্ষুন্ন করার চেষ্টা চালাচেছন। এসকল মিথ্যা তথ্য প্রমাণ করতে না পারলে আমি আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করতে বাধ্য হবো।

এখন সময়রাত ১:২১ | আজ৪ঠা শাওয়াল, ১৪৪২ হিজরি

‌↙ সংবাদ-টি শেয়ার করুন ↘

এ-ই বিভাগের আরও অন্যান্য খবর

আমাদের সাথে যারা…



ক্যালেন্ডার – ২ ০ ২ ১

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  

©২০২১। সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। ‘আলোকিত শীতলক্ষ্যা ডটকম’। এ-ই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা,ছবি,ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বে-আইনি।

Theme Customized By BreakingNews