সিদ্ধিরগঞ্জে ৬লাখ ৬০হাজার টাকা মূল্যের ১৩২টি চোরাই মোবাইলসহ গ্রেফতার

সংবাদটি শেয়ার করুন
0Shares

স্টাফ রিপোর্টার আলোকিত শীতলক্ষ্যা : চোরাই মোবাইল ক্রয়-বিক্রয় রুখতে থানা পুলিশের বিশেষ অভিযান চালিয়ে চোরাইকৃত ৬ লাখ ৬০ হাজার টাকা মূল্যের ১৩২টি স্মার্ট মোবাইল ফোন উদ্ধার করেছে।

এসময় এ চক্রের এক সদস্য কামরুল হাসান ওরফে রিপন (২০)‘কে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত রিপন চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জ থানার কাশিমপুর এলাকার মজিবুর পাটোয়ারীর ছেলে। অভিযানের সময় এই চক্রের আরেক সদস্য নবী হোসেন পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায়।

বুধবার (২২ জানুয়ারী) দুপুরে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় এক সংবাদ সম্মেলনে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ফারুক এর সত্যতা নিশ্চিত করেন।

গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ফারুক, পরিদর্শক (তদন্ত) আজিজুল হক ও পরিদর্শক (অপারেশন্স) রুবেল হাওলাদারের দিক নির্দেশনায় শিমরাইলস্থ আমিরুন্নেছা সুপার মার্কেটে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে ওসি কামরুল ফারুক জানান, দীর্ঘদিন থেকে একটি চক্র শিমরাইল মোড় এলাকায় চোরাই মোবাইল ফোন ক্রয় বিক্রয় করে আসছে। এদের বেশ কয়েকজন সদস্য রয়েছে যারা মোবাইল ছিনতাইকারী, চোর চক্রের সদস্যদের সাথে নিয়মিত যোগসংযোগ করে পথে-ঘাটে ছিনতাই ও বাসা-বাড়ি থেকে দামী মোবাইল ফোন চুরি করে নিয়ে আসে। পরে এগুলো সিদ্ধিরগঞ্জের বেশ কয়েকটি মার্কেটে ক্রয়-বিক্রয় করে।

এর সূত্র ধরে পুলিশ এই চক্রকে গ্রেফতারের জন্য নজরদারী শুরু করে। এরপর পুলিশ নিশ্চিত হয়ে আমিরুন্নেছা সুপার মার্কেটে নবী হোসেনের দোকানে অভিযান চালায়। এসময় উদ্ধারকৃত ওই চোরাই মোবাইলগুলোসহ রিপনকে গ্রেফতার করা হয়। তবে দোকান মালিক নবী হোসেন পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায়।

তিনি আরো বলেন, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ চুরি, ছিনতাই, ডাকাতি, মাদক ব্যবসাসহ বিভিন্ন অপরাধ কর্মকান্ড রুখতে নজরদারীসহ বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।
এঘটনায় পলাতক নবী হোসেনসহ রিপনকে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন
0Shares

আলোকিত শীতলক্ষ্যা

"পরিশ্রমকারীব্যক্তি কখনও ব্যর্থ হয়না"  এগিয়ে যাও সফল হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.