সবাইকে কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন ইকবাল আহমেদ রিপন

প্রধান-সংবাদ ফতুল্লা

আলোকিত শীতলক্ষ্যা রিপোর্ট : নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ইকবাল আহমেদ রিপন (মাদবর) করোনা আক্রান্ত হয়ে আনোয়ার খান মর্ডান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার সকালে ইন্তেকাল করেন। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তাঁর মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

বুধবার (৯ ডিসেম্বর) বাদ আসর আইটি স্কুল মাঠে বিশাল জানাযা শেষে দাফন সম্পন্ন করেছে।

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থানাধীন হাজীগঞ্জ মুক্তিযোদ্ধা সড়কের ঘোপটা নিবাসী মাদবর বাড়ির ইকবাল আহমেদ রিপন (মাদবর) তিনি সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন পদক্ষেপ পাঠাগারের সাধারণ সম্পাদক ও মানব কল্যাণ পরিষদের একজন সদস্যও ছিলেন। ক্লিন ইমেজের মানুষ রিপন মাদবর সামাজিক অবক্ষয় রোধে যথেষ্ট কাজ করেছেন এবং মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রেখেছিলেন। সবাইকে কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন তিনি।

ইকবাল আহমেদ রিপনের স্ত্রী সন্তান সহ আত্মীয় স্বজন এই মৃত্যু যেন সইতে পারেন, মরহুমের শোক সন্তপ্ত পরিবারবর্গের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে তার আত্নার মাগফেরাত কামনা করেছেন বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও এলাকাবাসী সহ সর্বস্তরের মানুষ। আল্লাহ তাআলা একজন সমাজকর্মী ও মানবিক যোদ্ধা রিপন মাদবর কে যেন জান্নাতবাসী করেন আমিন।

ইকবাল আহম্মেদ রিপন মাতবর করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ার পর তার পরিবারের আহবানে টিম খোরশেদ মরহুমের গোসল, কাফন ও পারিবারিক আয়োজনে আইটি স্কুল মাঠে বিশাল জানাযা শেষে বাদ আসর দাফন সম্পন্ন করেছে। এর আগে গত ৪ ডিসেম্বর টিম খোরশেদের প্লাজমা ডোনার খন্দকার রাইসুল রুশদী মরহুমকে বি পজেটিভ প্লাজমা ডোনেশন করেছিলেন।

রিপন মাতবরের দাফনে ছিলেন- টিম খোরশেদের, হাফেজ শিব্বির আহমেদ, নাজমুল কবীর নাহিদ, আওলাদ হোসেন, হাফেজ রিয়াদুল, আনোয়ার হোসেন, মোঃ লিটন মিয়া ও মোঃ নাঈম।

এ সময় খোরশেদ বলেন, করোনার ২য় ঢেউ খুব ভয়ের। আমরা এখন আর সচেতন নই তাই ভয়টা বেশি। এখনি সবাইকে সচেতন হতে হবে। আমরা সবাই সচেতন থাকি, পরিবারদেরকে সচেতন রাখি।

◤সংবাদটি শেয়ার করুন◥
0Shares