র‌্যাব-১১এর অভিযানে ১৫ কেজি গাঁজাসহ ৩ জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

প্রধান-সংবাদ সোনারগাঁ
সংবাদটি শেয়ার করুন
0Shares

আলোকিত শীতলক্ষ্যা রিপোর্ট : নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁ থানাধীন কাঁচপুর এলাকায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে গোপন সূত্রে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে শুক্রবার ১১ সেপ্টেম্বর দুপুরে র‌্যাব-১১ এর পরিচালিত চেকপোস্টে সিলেট হতে ঢাকাগামী মিতালী পরিবহনের একটি বাসে তল্লাশী করে ৪ কেজি গাঁজাসহ মোছাঃ ইয়াসমিন আক্তার জুঁই (২২) নামক এক নারী মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়। একই সূত্রে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে নরসিংদী জেলার শিবপুর থানাধীন সৈয়দেরগাঁও এলাকা হতে আরও ১১ কেজি গাঁজা উদ্ধারসহ মাদক ব্যবসায়ী ১। মোঃ মহিব শেখ (৩৫) ও ২। মোঃ বুরুজ মিয়া (৩৭)’কে গ্রেফতার করা হয়। এসময় গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যবসায়ীদের হেফাজত হতে মাদক বিক্রয়ের কাজে ব্যবহৃত ২টি মোবাইল এবং মাদক পরিবহনের কাজে ব্যবহৃত ১টি ট্রলি ব্যাগ জব্দ করা হয়।

শনিবার ১২ সেপ্টেম্বর বিকেলে আদমজীনগর র‌্যাব-১১’র কমান্ডার কোম্পানী সিপিএসসি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ জসিম উদ্দীন চৌধুরীর পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

গ্রেফতারকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ ও প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায়, আসামী ইয়াসমিন আক্তার জুঁই এর বাড়ী ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর থানাধীন গুনিত্তক এলাকায়। গ্রেফতারকৃত আসামী দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে পরিবহনযোগে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা হতে অভিনব পন্থায় নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্য গাঁজা নিয়ে এসে নরসিংদী, নারায়ণগঞ্জ, ঢাকা ও এর আশপাশের এলাকায় ক্রয়-বিক্রয় ও সরবরাহ করে আসছিল। তার একমাত্র পেশা ছিল মাদক ব্যবসা। গ্রেফতারকৃত ইয়াসমিন আক্তার জুঁইকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, সে নরসিংদী জেলার মাদক ব্যবসায়ী মহিব শেখকে গাঁজা সরবরাহ করতো। মহিব শেখ অপর গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ বুরুজ মিয়ার যোগসাজশে নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্য গাঁজা ক্রয় বিক্রয় করতো বলে জানা যায়। উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ১১ কেজি গাঁজা উদ্ধারসহ মাদক ব্যবসায়ী মোঃ মহিব শেখ ও মোঃ বুরুজ মিয়া (৩৭)’কে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ মহিব শেখ এর বাড়ী বাগেরহাট জেলার চিতলমারী থানাধীন বড়গুনি এলাকায় ও মোঃ বুরুজ মিয়া’র বাড়ী নরসিংদী জেলার শিবপুর থানাধীন আলীনগর এলাকায় বলে জানা যায়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা স্বীকার করে যে, পরষ্পর যোগসাজশে আর্থিকভাবে লাভবান হওয়ার জন্য তারা দীর্ঘদিন যাবৎ মাদক ব্যবসায়ী ইয়াসমিন আক্তার জুঁইয়ের মাধ্যমে নিষিদ্ধ মাদক দ্রব্য গাঁজা সংগ্রহ করে এবং কৌশলে পরিবহন করে নিয়ে এসে ঢাকা,নারায়ণগঞ্জ ও নরসিংদীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ক্রয়-বিক্রয় ও সরবরাহ করে থাকে।

গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

সংবাদটি শেয়ার করুন
0Shares
আলোকিত শীতলক্ষ্যা
পরিশ্রমকারীব্যক্তি কখনও ব্যর্থ হয়না এগিয়ে যাও সফল হবে।
https://alokitoshitalakha.com