মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে না ফেরার দেশে আনোয়ার জাহিদ

সংবাদটি শেয়ার করুন
0Shares

বিশেষ প্রতিনিধি আলোকিত শীতলক্ষ্যা : জন্মিলে মরিতে হয় এটাই চিরন্তন সত্য কথা। কিন্তু কিছু কিছু মৃত্যু সত্যি অনেক কষ্টের । সমাজে প্রতিটি মুহূর্তেই কোনো না কোনো মানুষ শোকাহত হয়ে পড়ছে। কারো বাবা মারা যাচ্ছে, সে শোকাহত হচ্ছে। কারো মা মারা যাচ্ছে, সে শোকাহত হচ্ছে। কারো সন্তান মারা যাচ্ছে, সে শোকাহত হচ্ছে। কারো স্ত্রী-পুত্র মারা যাচ্ছে, সে শোকাহত হচ্ছে। কারো স্বামী মারা যাচ্ছে সে শোকাহত হচ্ছে। প্রিয়জনের আসনটি শূন্য হলে মানুষের মনের গহীনে প্রিয়জনের ভবিষ্যৎ অনুপস্থিতি ভেসে উঠতে থাকে বারবার। তখন মনের মণিকোঠায় এক ধরনের হাহাকারের সৃষ্টি হয়; আর এই হাহাকারের অনুভূতিকেই শোকসন্তপ্ত বলা হয়।

শনিবার (২১ মার্চ) দুপুর ২টার দিকে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়ক সোনারগাঁ লাঙ্গলবন্দ নামক স্থানে আনোয়ার জাহিদ (৩৪) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী পিক-আপ ভ্যানের ধাক্কায় নিতহ হয়েছেন, ইন্না লিল্লাহি…..রাজিউন।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, স্ত্রী ও তার ছোটবোন (শ্যালিকা) কে নিয়ে মোটর সাইকেল চালিয়ে শশুরবাড়ি মতলব থেকে সিদ্ধিরগঞ্জ নিজ বাড়ির দিকে আসছিলেন আনোয়ার জাহিদ। সোনারগাঁ মোগড়াপাড়া পার হয়ে লাঙ্গলবন্দের কাছাকাছি এলে একটি পিক-আপ ভ্যানকে পাশ কাটাতে গিয়ে মোটর সাইকেলটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে এবং ছিটকে পড়ে যান মোটরসাইকেলে থাকা তিনজনই। আনোয়ার জাহিদ ও তার স্ত্রী মাথায় প্রচন্ড আঘাত পেয়ে গুরুতর আহত হন। পরে এম্বুলেন্সযোগে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যাওয়ার পথে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে আনোয়ার জাহিদ (৩৪) মারা যান। এসময় আহত স্ত্রী ও শ্যালিকাকে ভর্তি করানো হয় হাসপাতালে। নিহত আনোয়ার জাহিদ সিদ্ধিরগঞ্জ ৭নং ওয়ার্ড কদমতলি উত্তরপাড়া এলাকার মৃত খোদাবক্স মিয়ার মেঝো ছেলে। বর্তমানে তার স্ত্রীর অবস্থা মারাত্মক। আল্লাহর অশেষ রহমতে আনোয়ারের স্ত্রীর ছোটবোনের অল্প জখম হয়।

নিহতের পরিবারের কান্নায় পুরো এলাকা আকাশ-পাতাল ভারী করে নেমে আসে শোকের ছায়া ।

শনিবার রাত ১১টায় নিহতের জানাজা নামাজ শেষে আদমজীনগর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন
0Shares

আলোকিত শীতলক্ষ্যা

পরিশ্রমকারীব্যক্তি কখনও ব্যর্থ হয়না এগিয়ে যাও সফল হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.