আহমদীয়া মুসলিম জামাত তথা কাদিয়ানীদের অমুসলিম ঘোষণা‘র দাবিতে আল্লামা শাহ্ আহমদ শফী বলেছেন..

সংবাদটি শেয়ার করুন
0Shares

আমাদের নবী হযরত মুহাম্মদ (সা:) এর পর কোন নবী আসে নাই‘। আর আসবেও না‘। কাদিয়ানীরা তা বিশ্বাস করে না‘। তাই কাদিয়ানীদের অমুসলিম ঘোষণা করলেই সরকারের সাথে থাকবেন, নয়তো সরকারের সাথে থাকবেন না বলে জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমীর ও আন্তর্জাতিক মজলিসে তাহাফফুজে খতমে নবুওয়াত বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল্লামা শাহ্ আহমদ শফী।

শনিবার (০১ ফেব্রুয়ারি) জামতলায় বিকেলে নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে এক ইসলামী মহা-সম্মেলনে বক্তব্যে একথা বলেন আল্লামা শাহ আহমদ শফী।

আহমদীয়া মুসলিম জামাত তথা কাদিয়ানীদের অমুসলিম ঘোষণা করার দাবিতে আন্তর্জাতিক মজলিসে তাহাফফুজে খতমে নবুওয়ত নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখা কমিটি এই ইসলামী মহা-সম্মেলনের আয়োজন করেন।

আল্লামা শাহ্ আহমদ শফি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘আমি আগেও মানুষ দ্বারা জানিয়েছি যে, কাদিয়ানীদের সরকারি ভাবে অমুসলমান ঘোষণা করা হোক। আমি জানি এ সম্মেলনেও সরকারী অনেক লোক আছে। তোমরা বলে দিও সরকার কাদিয়ানীদের যেন ব্যবস্থা নেয়।

আল্লামা শাহ আহমদ শফী বলেন, আমাদের নবী হযরত মুহাম্মদ (সা:)`কে যারা মানবেন না‘ তারা কাফের। তাদেরকে, মুসলামন কবরস্থানে, কবর দেয়া যাবে না‘। তাদের সাথে কোন আত্মীয়তা করা যাবে না‘। তারা যদি এ দেশে বসবাস করতে চায় তাহলে হিন্দু হয়ে থাকতে হবে‘। বৌদ্ধ হয়ে থাকতে হবে‘। অথবা খ্রিষ্টান হয়ে থাকবে‘। কিন্তু তারা মুসলমান হয়ে থাকতে পারবেনা।

আন্তর্জাতিক মজলিসে তাহাফফুজে খতমে নবুওয়ত বাংলাদেশ নারায়ণগঞ্জের সভাপতি আবদুল কাদিরের সভাপতিত্বে ও হেফাজতে ইসলাম নারায়ণগঞ্জ মহানগরের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা ফেরদাউসুর রহমানের সঞ্চালনায়, আল্লামা শাহ আহমদ শফী ছাড়াও মহাসম্মেলনে আরও বক্তব্য রাখনে, হেফাজতে ইসলামীর মহাসচিব জুনায়েদ বাবুনগরী, হেফাজতে ইসলামীর ঢাকা মহানগরের সভাপতি নূর হোসাইন কাশেমী, সাইদুর রহমান, আব্দুল হামিদ, আতাউল্লাহ ইবনে হাফেজ্জী, মিজানুর রহমান চৌধুরী, নূরুল ইসলাম জিহাদী, আবদুল্লাহ মুহাম্মদ হাসান, জুনায়েদ আল হাবীব, ইমাদুদ্দীন, আবদুল বারী, আশরাফ আলী, আবদুল কুদ্দুস, তাফাজ্জুল হক, নূরুল ইসলাম ওলিপুরী, মুহাম্মদ ওয়াক্কাস, আশেকে এলাহী, আব্দুল হাই মেশকাত, মুহাম্মদ ইসহাক, মামুনুল হক, নজরুল ইসলাম কাশেমী, ওবায়দুর রহমান খাঁন নদভী, মাহবুবুল হক কাশেমী, শফিকুল ইসলাম, আবদুল আউয়াল, আবদুল কাদির, আবু তাহের জিহাদী, কাউন্সিলর মাকছুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ, শ্রমিক নেতা কাউসার আহম্মেদ পলাশ, সেন্টু প্রমূখ।

সংবাদটি শেয়ার করুন
0Shares

আলোকিত শীতলক্ষ্যা

পরিশ্রমকারীব্যক্তি কখনও ব্যর্থ হয়না এগিয়ে যাও সফল হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.