অর্ধ-লক্ষাধীক শ্রমিকের মানবেতর জীবন যাপন, প্রধানমন্ত্রীর সহযোগীতা চান সভাপতি-সম্পাদক

সংবাদটি শেয়ার করুন
0Shares

বিশেষ প্রতিনিধি আলোকিত শীতলক্ষ্যা :: মরন ব্যাধি করোনা ভাইরাসের কারনে প্রায় একমাস লকডাউনে ঘরবন্ধি হয়ে পড়েছেন গার্মেন্টস জুট প্রসেসার্স অনার্স এন্ড অনার্স এসোসিয়েশনের অর্ধলক্ষাধীক শ্রমিক। এতে কর্মহীন ও বেকার হয়ে পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন তারা। তাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এ কর্মহীন শ্রমিকরা।

ওই সংগঠনের শ্রমিক মঞ্জুর মিয়া বলেন, করোনার কারনে আমরা ঘরবন্ধি হয়ে পড়েছি। কারখানা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় সম্পুর্নভাবে বেকার হয়ে পড়েছি আমরা। বউ ছেলে মেয়ে নিয়ে অর্ধাহারে অনাহারে দিন কাটাচ্ছি।

এনামুল মিয়া নামের এক শ্রমিক ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আমরা না খেয়ে মরে গেলেও আমাদের খবর নেয়ার মত কেউ নেই। আমরা কারখানা মালিকদের কাছ থেকে সাহায্য সহযোগীতা পেলেও সরকারি কোন সহযোগীতা এখনো পর্যন্ত পাইনি।

ইব্রাহীম নামের আর এক শ্রমিক বলেন, আমাদের কারখানা খুলে দেওয়া হউক। না হলে আমাদের না খেয়ে মরতে হবে।

দীপঙ্কর নামের অন্য এক শ্রমিক বলেন, আমাদের কাজ নেই, ঘরে খাবার নেই। এ অবস্থায় মানবেতর জীবন থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ ছাড়া আমাদের সামনে আর কোন রাস্তা নেই।

গার্মেন্টস জুট প্রসেসার্স এন্ড অনার্স এসোসিয়েশনের সাধারন সম্পাদক হাজী কবির হোসেন কালের কন্ঠকে বলেন, গার্মেন্টস এর জুট থেকে তুলা তৈরী করে বিভিন্ন দেশে রপ্তানী করে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে গুরুত্বপূর্ন ভুমিকা রাখছেন এই সকল শ্রমিকরা। করোনা ভাইরাসের কারনে এক মাসের বেতন দিয়ে কারখানা ছুুটি ঘোষনা করা হয়েছে।

সংগঠনটির সভাপতি বিপ্লব কুমার সাহা কালের কন্ঠকে বলেন, বর্তমানে প্রায় অর্ধলক্ষাধীক বেকার হয়ে কষ্টে দিন যাপন করছেন। তাই মমতাময়ী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যদি এই সকল শ্রমিকদের জন্য সাহায্যের হাত বাড়ায়ি দেন তাহলে মানবেতর ও অসহায় জীবন থেকে তাদের রক্ষা করা সম্ভব হবে। এজন্য প্রধানমন্ত্রীর জরুরী হস্থক্ষেপ কামনা করছেন সভাপতি বিপ্লব কুমার সাহা ও সাধারণ সম্পাদক হাজী কবির হোসেন।

এবিষয়ে জানতে চাইলে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন কলের কন্ঠকে বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে হতদরিদ্র,অসহায়দের তালিকা করে তাদের বাড়ি বাড়ি খাদ্য সামগ্রী পৌছে দেওয়া হচ্ছে। পর্যায়ক্রমে সকল অসহায়দের মাঝে ত্রান সামগ্রী দেওয়া হবে বলেও জানান নারায়ণগঞ্জ ডিসি।

সংবাদটি শেয়ার করুন
0Shares

আলোকিত শীতলক্ষ্যা

পরিশ্রমকারীব্যক্তি কখনও ব্যর্থ হয়না এগিয়ে যাও সফল হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.